বিজ্ঞানী আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু জীবনী | Acharya Jagdishchandra Bose Biography

Hello Students,


Wellcome to www.ajjkal.com চাকরির পরীক্ষার প্রস্তুতির সেরা ঠিকানা,  www.ajjkal.com আজ নিয়ে এসেছি Acharya Jagdishchandra Bose Biography. প্রতিবছর বিভিন্ন পরীক্ষার যেমন  CTET | WBTET | WBCS । MPTET | ATET| UPTET | Rajasthan PTET | TNTET | Karnataka TET | RTET | HTET| PSTET। BANK EXAM। ইত্যাদি পরীক্ষার বিভিন্ন প্রস্তুতি পত্র আপনাদের বিনামূল্যে দিয়ে এসেছি। তাই Ajjkal.com আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছে বিজ্ঞানী আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু জীবনী | Acharya Jagdishchandra Bose Biography

Ajjkal

বিজ্ঞানী আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু জীবনী | Acharya Jagdishchandra Bose Biography

■ জন্ম : আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু 1858 খ্রিস্টাব্দে 30 শে নভেম্বর বর্তমান বাংলাদেশের ঢাকা জেলার বিক্রমপুরের রাঢ়িখাল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

■ শিক্ষালাভ : ছেলেবেলায় ফরিদপুরের স্কুলে শিক্ষালাভের পর কলকাতার হেয়ার স্কুল ও পরে সেন্ট জেভিয়ার্স স্কুলে পড়াশুনা করেন। প্রবেশিকা পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে পাশ করে তিনি সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ থেকে ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর তিনি উচ্চশিক্ষার জন্য বিলেত যান। কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি রসায়ন, পদার্থবিদ্যা ও উদ্ভিদবিদ্যায় ‘ট্রাইপস’ পান এবং লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি ডিগ্রি লাভ করেন।

■ কর্মজীবন ও আবিষ্কার : 1885 খ্রিস্টাব্দে দেশে ফিরে তিনি প্রেসিডেন্সি কলেজে পদার্থবিদ্যায় অধ্যাপনার কাজ পান। ইথারের মধ্য দিয়ে বেতার তরঙ্গ প্রেরণ ও আবার তা গ্রহণ সম্পর্কে কৃতিত্বপূর্ণ গবেষণা ও পরীক্ষা করেন। এই সময় লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে ডিএসসি উপাধি দেন। মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীর মতো উদ্ভিদও উত্তেজিত হয়, সাড়া দেয় ও ক্লান্ত হয়, তা তিনি বিভিন্ন পরীক্ষার সাহায্যে দেখিয়েছিলেন। (1919 খ্রিস্টাব্দে তাঁর, সৃষ্ট ক্রেস্কোগ্রাফ, স্ফিগমোগ্রাফ যন্ত্রের ব্যবহার তিনি বিদেশের বিজ্ঞানীদের দেখিয়ে আসেন। তিনি পোটোমিটার যন্ত্র আবিষ্কার করেন।

■ সম্মানলাভ : 1920 খ্রিস্টাব্দে তিনি রয়্যাল সোসাইটির সদস্য নির্বাচিত হন। 1927 খ্রিস্টাব্দে তিনি ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসের সভাপতি হন। 1928 খ্রিস্টাব্দে তিনি ভিয়েনা অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের বৈদেশিক সদস্য নির্বাচিত হন।

■ সমাজসেবা : জগদীশচন্দ্র একাধারে বৈজ্ঞানিক, স্বদেশপ্রেমিক ছিলেন। বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ভারতের অনগ্রসরতা তাঁকে ব্যথিত করেছিল। তাই পরাধীন ভারতের বিজ্ঞান গবেষণার দৈন্য দূর করার জন্য নিজের শেষ কপর্দক পর্যন্ত দিয়ে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন “বসু বিজ্ঞান মন্দির”।

■ মৃত্যু : আধুনিক ভারতের বিজ্ঞানের অগ্রদূত আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু 1937 খ্রিস্টাব্দের 23 শে নভেম্বর গিরিডিতে পরলোকগমন করেন।

Note: পোস্ট টি অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এ শেয়ার করুন।